চুল পড়া রো’ধে কলার জা’দুকরী পাঁচ ব্যবহার!

নারী কিংবা পুরুষ, উভ’য়ের সৌন্দর্য বাড়াতে চুলের ভূমিকা অপরিসীম। কিন্তু নিত্যদিনের ব্যস্ততার কারণে ঠিকভাবে চুলের যত্ন নেয়ার সময় কই? পাগলাটে জীবনধারণ, যত্নে অনিয়ম, অতিরি’ক্ত রোদে ঘুরে বেড়ানো, ময়লা ও দূষণ থেকে অস্বা’স্থ্যকর খাদ্যাভ্যাস এই সবই আমাদের মূল্যবান চুলকে ক্ষ’তির দিকে ঠেলে দিচ্ছে। এতে চুল রুক্ষ-শুষ্ক হচ্ছে, এমনকি চুল পড়ার

প্র’বণতাও বেড়ে যাচ্ছে।
তবে হ’তাশ বা চিন্তিত হবেন না। হাজারো ব্যস্ততার মধ্যে অল্প সময়ের জন্য হলেও ঘরে বসে নিয়মিত যত্ন নিন, তবেই চুল পড়া কমবে। আপনি যদি ঘন-কালো ও মসৃণ চুল চান এবং চুল পড়া

রো’ধ ক’রতে চান, তবে কলাকেই বিকল্প হিসেবে বেছে নিন। ভারতের জীবনধারা ও স্বা’স্থ্যবিষয়ক ওয়েবসাইট বোল্ডস্কাইয়ের এক প্র’তিবেদনে কলার গুণাগুণ ও চুল পড়া রো’ধে এর ব্যবহার নিয়ে আলোকপাত করা হয়েছে। প্র’তিবেদন অনুযায়ী কলায় রয়েছে ভিটামিন, মিনারেল ও প্রোটিন। এতে থাকা উপাদান চুল পড়া রো’ধে সাহায্য করে। মাথার ত্বক ও চুলের চিকিৎ’সায় কলা

অত্যন্ত উপকারী। চলুন এবার জে’নে নেয়া যাক চুল পড়া রো’ধে যেভাবে কলা ব্যবহার করবেন-
কলা ও মধু-ক্রনিক খুশকি রো’ধে মধু খুবই কা’র্যকর। এতে থাকা উপাদান মাথার ত্বককে আর্দ্র করে। দুটি পাকা কলা থেঁতলে তাতে দুই চা চামচ মধু মেশান। ভালো করে পেস্ট তৈরি করুন। এবার সেই পেস্ট ত্বক ও চুলে লা’গান। ২০ থেকে ২৫ মিনিট রেখে দিন। পরে ধীরে শ্যাম্পু করুন। ভালো ফল মিলবে।

কলা, পেঁপে ও মধু-কলা, পেঁপে ও মধুর মি’শ্রণ চুল পড়া রো’ধ করে এবং চুলের গ’ভীর থেকে পুষ্টি জোগায়। পেঁপে চুলকে শ’ক্তিশালী করে গোড়া থেকে। পেঁপেতে থাকা ফলিক অ্যাসিড চুল পড়া রো’ধ করে। দুটি পাকা কলা, অর্ধেক পাকা পেঁপে পিষে নিন এবং তাতে দুই টেবিল চামচ মধু মেশান। এবার ভালো করে পেস্ট তৈরি করুন। তারপর মাথার ত্বক ও চুলে ভালো করে লা’গান। শাওয়ার ক্যাপ পরে নিন এবং রেখে দিন ৩০ মিনিট। এবার শ্যাম্পু দিয়ে ভালো করে চুল ধুয়ে নিন। সপ্তাহে এক থেকে দুবার এটি করলে প্রত্যাশিত ফল পাবেন।

কলা ও দই-মাথার ত্বকের স্বা’স্থ্যে দই খুবই কা’র্যকর, সেইস’ঙ্গে রুক্ষ হওয়া থেকে চুলকে র’ক্ষা করে। এটি চুলের বৃ’দ্ধিতেও সহায়ক। একটি পাকা কলা থেঁতলে তাতে আধা কাপ দই মেশান। ভালো করে পেস্ট করুন। এবার মাথার ত্বকে ওই পেস্ট লা’গান। ১০ থেকে ১৫ মিনিট রেখে দিন। পরে শ্যাম্পু করুন। সপ্তাহে দুবার এটি করুন, দেখু’ন চ’মক।

কলা, জলপাই তেল ও নারকেল তেল-কলা, অলিভ অয়েল ও নারকেল তেলের মি’শ্রণ চুলের স্বা’স্থ্যে খুবই উপকারী। এতে থাকা উপাদান চুলের গ’ভীরে প্রোটিন পৌঁছে দেয় এবং চুল পড়া রো’ধ ক’রতে সাহায্য করে। দুটি পাকা কলা, এক টেবিল চামচ অলিভ অয়েল ও এক টেবিল চামচ নারকেল তেল নিন। এবার মি’শ্রণ তৈরি করুন। এর স’ঙ্গে জুড়ে দিন এক টেবিল চামচ মধু। ভালো করে পেস্ট তৈরি করুন এবং এটি মাথার ত্বক ও চুলে লা’গান। রেখে দিন পাঁচ থেকে ১০ মিনিট। পরে হালকা গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। ভালো ফল পাওয়ার জন্য সপ্তাহে একবার ব্যবহার করুন।

কলা ও অ্যালোভেরা জে’ল-অ্যালোভেরা জে’লে রয়েছে বিটা-ক্যারোটিন, ভিটামিন সি ও ই এবং এতে রয়েছে শ’ক্তিশালী অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, যা মাথার ত্বক ও চুলের স্বা’স্থ্যে খুবই উপকারী। একটি পাকা কলা ও এক টেবিল চামচ অ্যালোভেরা জে’ল পাত্রে ঢালুন। কলা থেঁতলে নিন এবং অ্যালোভেরা জে’লের স’ঙ্গে ভালো করে মেশান। পরে মি’শ্রণটি মাথার ত্বক ও চুলে লা’গান। শাওয়ার ক্যাপ পরে ৩০ মিনিট রেখে দিন। এবার ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে নিন চুল। শ্যাম্পুও ক’রতে পারেন। দেখবেন, চুল পড়া কমবে।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*